‘ফের কোণঠাসা রোমা সম্প্রদায়’

Read Time:2 Minute, 41 Second
‘ফের কোণঠাসা রোমা সম্প্রদায়’

ইউরোপের সবচেয়ে বড় সংখ্যালঘু গোষ্ঠী রোমা সম্প্রদায়ের লোকজন বর্ণবাদ ও অধিকারবঞ্চিত হচ্ছেন, বলে মন্তব্য করেছেন জার্মানির টুরিঙ্গিয়া রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বোডো রামেলো। 

রোমা হলোকাস্ট দিবস উপলক্ষে মঙ্গলবার পোল্যান্ডের আউশভিৎস-বিরকেনাউ ক্যাম্পে উপস্থিত হয়ে তিনি এ কথা বলেন। রামেলো বাম দলের প্রধান এবং জার্মানির ১৬টি রাজ্যের চেম্বার বুন্দেসরাটেরও প্রেসিডেন্ট।

তিনি ইউরোপীয়ান রোমা হলোকাস্ট দিবস উপলক্ষে পোল্যান্ডে নাৎসি বাহিনীর ক্যাম্প আউশভিৎস-বিরকেনাউ পরিবদর্শন করেন। সেখানে তিনি বলেন, ‘‘এখনো তারা অনেক জায়গায় কোণঠাসা। তারা বিভিন্ন দেশে ঘৃণা, বৈষম্য, বর্ণবাদ, সহিংসতার শিকার এবং তাদের নাগরিক ও সামাজিক অধিকার বঞ্চিত।”

ইউরোপে রোমা জনসংখ্যা প্রায় ১ কোটির মত। এরা ইউরোপের সবচেয়ে বড় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়। রামেলো ছাড়াও সেন্ট্রাল কাউন্সিল অফ জার্মান সিনটি ও রোমার চেয়ারম্যান রোমাইনি রোজে নিহতদের স্মরণে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। 

১৯৪৪ সালের ২ আগস্ট নাৎসিরা পোল্যান্ডের এই ক্যাম্পের গ্যাস চেম্বারে চার হাজার ৩০০-র মতো সিনটি ও রোমা সম্প্রদায়ের মানুষকে হত্যা করে। ইউরোপজুড়ে তাদের হাতে রোমা জনগোষ্ঠীর প্রায় পাঁচ লাখ মানুষকে হত্যা করা হয়।

২০১৫ সালে ইউরোপীয় পার্লামেন্ট ২ আগস্টকে ইউরোপীয় রোমা হলোকাস্ট দিবস হিসেবে ঘোষণা করে।

‘‘পাঁচ লাখ সিনটি ও রোমা সম্প্রদায়ের মানুষকে হত্য করে নাৎসি কর্তৃত্ববাদ সরকার,” রামেলো বলেন। ‘‘ইহুদি ও অন্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মতো সিনটি ও রোমাদের একটি বর্ণ বিদ্বেষের বশে হত্যা করা হয়।”

১৯৮২ সালে রোমানিদের একটি উপগোষ্ঠী সিনটি হত্যাকেও গণহত্যার স্বীকৃতি দেয়া হয়। 

0 0
Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

Average Rating

5 Star
0%
4 Star
0%
3 Star
0%
2 Star
0%
1 Star
0%

Leave a Reply

Your email address will not be published.