দোয়া চেয়েছেন খালেদা জিয়া: সাক্ষাৎ শেষে ফখরুল

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। পাশাপাশি নিজের জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

আজ মঙ্গলবার ঈদুল ফিতর উপলক্ষে রাত আটটার দিকে বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতারা খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে গুলশানে তাঁর বাসায় যান। দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে তাঁরা প্রায় ঘণ্টাব্যাপী সেখানে বৈঠক করেন। সেখান থেকে বের হয়ে মির্জা ফখরুল উপস্থিত সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

এ সময় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে আরও ছিলেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, জমির উদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান ও সেলিমা রহমান।

মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে এসেছিলাম। এ সাক্ষাৎ আমরা আগেও করেছিলাম, যখন তিনি কারাগারে বা গৃহে অন্তরীণ ছিলেন না। ঘরের ভেতরে না, তাঁর লনে আমরাসহ আরও অনেকেই আসতেন। তাঁর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতেন, তিনি কথা বলতেন। আমাদের এবারের সাক্ষাৎ সে জন্য নিঃসন্দেহে খুব বেশি আনন্দময় ছিল না। তিনি আগেও যেমন দেশের মানুষের কথা ভেবেছেন, আজকের সাক্ষাতেও দেশের মানুষের অবস্থার কথা জানতে চেয়েছেন। বর্তমানের সামগ্রিক অবস্থা সম্পর্কে তিনি আমাদের দ্বারা অবগত হয়েছেন।

তিনি কাগজেও (দৈনিক পত্রিকা) পড়েছেন, তারপরও তিনি আমাদের কাছ থেকে শুনেছেন। তিনি উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘দেশনেত্রী খালেদা জিয়া আপনাদের মাধ্যমে সমগ্র দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানাতে চান। তাঁর জন্য তিনি দোয়া চেয়েছেন। এ দেশের মানুষ যেন ভালো থাকে, সুস্থ থাকে, গণতন্ত্রকে যেন ফিরে পায়। তাদের অধিকার যেন ফিরে পায়। এই প্রার্থনা তিনিও করেছেন।’

খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এখনো তিনি সুস্থ নন। অত্যন্ত অসুস্থ তিনি। এখনো হেঁটে খাবার টেবিলে যেতে তাঁর কষ্ট হয়। এটা হচ্ছে বাস্তবতা।’

নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে খালেদা জিয়া দেশের প্রতি ভালোবাসা বাড়াতে বলেছেন বলে উল্লেখ করেন মির্জা ফখরুল। খালেদা জিয়া বলেছেন, তাঁরা (নেতা-কর্মীরা) যেন দেশকে মুক্ত করেন।

Education Template

AllEscort