অদম্য মেধাবী তামান্না নূরার সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

যশোরের ঝিকরগাছার অদম্য মেধাবী তামান্না নুরার সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বললেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শারীরিক প্রতিবন্ধী এ শিক্ষার্থীর সঙ্গে চার মিনিট কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর খোঁজখবর নেন।

আজ সোমবার সন্ধ্যা ৬টা ৫৬ মিনিটে তামান্নার মোবাইলে কল করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর আগে তামান্নার ফোন বন্ধ পেয়ে তাঁকে একটি বার্তা পাঠান তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর ফোন করার বিষয়ে তামান্না নুরা বলেন, ‘আমার চিঠি পেয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে কল দিয়েছিলেন। এইচএসসির ফলাফল শুনে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, “তুমি এগিয়ে যাও, আমি তোমার সাথে আছি। আমি তোমাকে যাবতীয় সহযোগিতা করব। তোমার সাফল্যে আমি আনন্দিত”।’

বাঁ পায়ে লিখেই জিপিএ-৫বাঁ পায়ে লিখেই জিপিএ-৫
আজ তামান্না নিজের স্বপ্ন পূরণের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহযোগিতা ও দেখা করতে চেয়ে চিঠি লেখেন। তামান্নার বাঁ পায়ে লেখা সে চিঠি তাঁর বাবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাহবুবুল হকের কাছে জমা দেন। সে চিঠি জেলা প্রশাসকের কাছে পাঠান ইউএনও।

তামান্না আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী আমাকে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টে একটি আবেদন করতে বলেছেন।’

তামান্না পিএসসি, জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার সবকটিতে জিপিএ ৫ পেয়েছেন। দৃঢ় মনোবল নিয়ে তামান্না বাঁ পা দিয়ে লিখেই টানা ভালো ফল করে সবাইকে চমকে দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি তামান্নারপ্রধানমন্ত্রীকে চিঠি তামান্নার
যশোরের ঝিকরগাছার বাঁকড়া ডিগ্রি কলেজ থেকে তামান্না নুরা বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নেন। তিনি ঝিকরগাছার আলীপুর গ্রামের রওশন আলী ও খাদিজা পারভিন শিল্পী দম্পতির মেয়ে। তিন ভাই-বোনের মধ্যে তামান্না বড়।

তামান্নার মনোবল তাঁকে সাফল্যের সিঁড়িতে পৌঁছে দিয়েছে। দুই হাত ও এক পা নেই তামান্না নুরার। শরীরে মশা-মাছি বসলে তাড়ানোর সক্ষমতাও নেই তাঁর। টেবিলের ওপর বসে এক পা দিয়ে খাতায় লেখেন তামান্না। সে লেখাও দৃষ্টিনন্দন। শুধু বাঁ পা নিয়ে জন্ম নেওয়া তামান্না শারীরিক প্রতিবন্ধিতাকে জয় করেছেন। তাঁর এখন শুধুই সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয়।

ঝিকরগাছার ইউএনও মো. মাহবুবুল হক আজকের পত্রিকাকে বলেন, ‘তামান্না প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছিলেন, তিনি সেটি পেয়েছেন। আজ তিনি তামান্নাকে ফোন করেন। প্রধানমন্ত্রীর বোন শেখ রেহানাও তামান্নার সঙ্গে কথা বলেছেন। তাঁরা তামান্নাকে নিশ্চিন্তে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে বলেছেন। পরবর্তীতে কোনো সমস্যা হলে বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টে আবেদন করার পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।’

Education Template

AllEscort