এশিয়ার শীর্ষ ধনী গৌতম আদানি

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে ভারতীয় ব্যবসায়ী গৌতম আদানির সম্পদের পরিমাণ হুহু করে বেড়েছে। তিনি নিজ দেশের মুকেশ আম্বানিকে টপকে এশিয়ার ধনীদের তালিকায় শীর্ষস্থানে উঠে এসেছেন। একাধিক বন্দর, মহাকাশ প্রযুক্তি থেকে শুরু করে তাপশক্তি ও কয়লা ব্যবসার নিয়ন্ত্রক আদানি গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ৫৯ বছর বয়সী  গৌতমের সম্পদের মূল্য এখন ৮৮ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলার বলে জানিয়েছে ব্লুমবার্গ বিলিয়নেয়ার ইনডেক্স।

গত বছর এই সময়ে তার সম্পদের মূল্য ছিল ৪০ বিলিয়ন ডলারেরও কম। এক বছরের মধ্যেই তিনি জ্বালানি ও প্রযুক্তি খাতের বড় উদ্যোক্তা মুকেশ আম্বানিকে টপকে বিশ্বের দশম শীর্ষ ধনীতে পরিণত হয়েছেন। মহামারিকালে ভারতের শেয়ারবাজারে আদানি গ্রুপ অভাবনীয় ভালো ফল করেছে। ২০২০ সালের জুনের পর থেকে মুম্বাইয়ের ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জে আদানি এন্টারপ্রাইজের শেয়ারের দাম লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েছে, যা দেখাচ্ছে বিনিয়োগকারীরা অবকাঠামো ও নবায়নযোগ্য জ্বালানিসহ বিভিন্ন খাতে আদানি গ্রুপের সক্ষমতা নিয়ে বেশ আশাবাদী। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির অর্থনৈতিক উন্নয়ন লক্ষ্যেও এসব খাত বেশ গুরুত্বপূর্ণ। ৮৭ দশমিক ৯ বিলিয়ন ডলার সম্পদ নিয়ে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের চেয়ারম্যান মুকেশ আম্বানির অবস্থান এখন ব্লুুমবার্গের তালিকার ১১ নম্বরে।সাম্প্রতিক সময়ে বিলিয়নেয়ারদের তালিকায় খালি এটিই একমাত্র রদবদলের ঘটনা নয়। গত সপ্তাহে ফেসবুকের প্যারেন্ট কোম্পানি মেটাও স্টক মার্কেটে ঐতিহাসিক দরপতন দেখেছে, যার ফলে মার্ক জাকারবার্গের ব্যক্তিগত সম্পদ থেকে ৩০ বিলিয়ন ডলারের বেশি হাপিস হয়ে গেছে। মেটার প্রধান নির্বাহী ও সহ-প্রতিষ্ঠাতা এখন ব্লুমবার্গের ধনীদের তালিকায় ১৩ নম্বর স্থানে অবস্থান করছেন।

Education Template

AllEscort